চোখের নিচে কালো দাগ, ঘরোয়া পদ্ধতিতে মাত্র ৩ দিনে দূর করুন ১০০% কার্যকরী

প্রিয় পাঠক, চোখের নিচে কালো দাগ হওয়া একটি প্রচলিত সমস্যা।অনেকেই চোখের কালো দাগ সমস্যায় ভোগের।চোখের নিচে কালো বা ডার্ক সার্কেল নিয়ে অনেকেই বিব্রতকর পরিস্থিতি পড়েন।চোখের নিচে কালো দাগ হওয়ার ফলে চেহারার সৌন্দর্য অনেক অংশে কমে যায়। আমাদের নিয়মিত আয়োজন টিপস্ এন্ড ট্রিকস এর আজকে পর্বে আলোচনা করব কিভাবে ঘরোয়া পদ্ধতিতে খুব সহজেই চোখের নিচের কালো দাগ দূর করার উপায়।

চোখের নিচে কালো দাগের কারনঃ-

চোখের নিচে কালো দাগ বিভিন্ন কারণে হয়ে থাকে।অনেকের বংশগত কারণে এই দাগ হয়ে থাকে।আবার কারও কারও ক্ষেত্রে রাত জাগলে চোখের নিচে কালো দাগ পড়ে। অতিরিক্ত মানসিক দুশ্চিন্তা করার কারণের চোখের নিচে কালো দাগ পড়তে পারে।এছাড়াও শারিরীক কিছু জটিল সমস্যায় কারণের চোখের নিচে কালো দাগ পড়তে পারে।

চোখের নিচের কালো দাগের সমাধানঃ-

১/ শসার ব্যবহারঃ-শসার রস চোখের চার পাশের কালে দাগ ও ফুলা ভাব,কুচকানো ভাব দূর করে। প্রথমের একটি শসার দুই অংশে কেটে নিয়ে তা গিটারের সাহায্যে শসার পেষ্ট তৈরি করে নিতে হবে।অিাপনি চাইলে সরাসরি শসার পেষ্ট চোখের উপয়ে দিয়ে রাখতে পারেন।এটির চোখের কালো দাগ দূর করে।এখন একটি পরিষ্কার বাটিতে দুই চামচ শসার পেষ্ট নিয়ে এর রস বের করে নিতে হবে।

তারপর এর সাথে যোগ করতে হবে অর্ধেক অংশের রস।টমেটো ক্নিনে ত্বক উজ্জল করতে সাহায্য করে,যা চোখের কালো দাগ কমায় এবয় উজ্জর করে তুলে।এরপর এর সাথে যোগ করুন ১ চামচ চালের গুড়ো সাথে হাফ চামচ হলুদের গুড়ো মিশিয়ে নিন।এখন সবগুলো উপাদান ভালো ভাবে মিশিয়ে নিতে হবে।চালের গুড়ো ও হলুদের গুড়োতে রয়েছে অ্যান্টি-অক্সিজেট।

যা চোখের চারপালে মরা চামড়া দূর করে।কালো দাগ দূর করে।এভাবে মিশ্রণটি চোখের নিচে ভালোভাবে লাগিয়ে নিতে হবে এবং ১৫ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে এটি শুকানোর পর্যন্ত। তারপর পরিষ্কার পানি দিয়ে এটি ধুয়ে নিতে হবে।

 

২/ আলুর ব্যবহারঃ- প্রথমে একটি আলু নিতে হবে।অবশ্যই এটি ধুয়ে পরিষ্কার করে নিতে হবে।আলুটিকে গিটারের সাহায্যে শসার পেষ্ট তৈরি করে নিতে হবে। আলুর রস ক্নিনের জন্য খুবই উপকারী।প্রথমের একটি পরিশ্কার পাত্রে এক চামচ অ্যালোভেরা জেল নিন,তারপর এক চামচ আলুর পেষ্টে থেকে রস বানিয়ে নিন,সাথে এক চামচ গ্লিসারিন যোগ করে নিতে হবে।

তারপর দুটি ভিটামিন-ই ক্যাবসুল যোগ করে নিতে হবে।সবগুলো উপাদান মিশিয়ে নিতে হবে।মিশ্রণটি ভালো বাবে মিশানোর পর একটি কটন বলের মাধ্যমে চোখের নিচে ও কালো দাগ হওয়া অংশে ভালোভাবে লাগিয়ে নিতে হবে।এটি রাতে শুবার আগে লাগিয়ে নিবেন। সকালে ঘুম থেকে উঠার পর পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে নিবেন।

 

৩/ নারকেল তেলঃ- চোখের কালো দাগ দূর করতে চোখের চারপাশে নারকেল ভালোভাবে ম্যাসাজ করুন।এটি ত্বককে কোমল করে এবং বলিরেখা দূর করে।প্রতিদিন নিয়ম করে রাতে ঘুমানো যাওয়ার আগে চোখের চারপাশে নারকেল তেল ম্যাসাজ করুন। এটি নিয়মিত ব্যবহার করলে কিছুদিনের মাঝেই াপনার চোখের নিচে কালো দাগ দূর হয়ে যাবে।

৪/ লেবু ও শসার রস মিশ্রণঃ-লেবু ও শসার রস একই অনুপাতে মিশিয়ে নিন।এটি কটন বল ভিজিয়ে চোখে নিচে কালো অংশে ১৫ মিনিট দিয়ে রেখে পরিষ্কার পানি দিয়ে চোখ পরিষ্কার করে নিন।এছাড়াও বেশি বেশি লেবুর রস খেতে পারেন।লেবুতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন-সি থাকে। ফলে এটি ত্বকের উজ্জ্বলতা অনেক অংশে বৃন্ধি করে ও চোখের নিচের কালো দাগ দূর করতেও সাহায্য করে।

 

অন্যদিকে শসা ত্বকের যত্বে বহুব্যবহার প্রচলিত রয়েছে।শসা ব্যবহারের ফলে চোখের আরামবোধ হয়।এটি চোখের নিচে কালো দাগ দুর করে ককে আরও সৌন্দর্যময় করে তুলে।শসা প্রথমের গোল করে কেটে ফ্রিজে রেখে দিন।কিছসময় পর শসা বের করে শসার স্লাইজটি ১৫/২০ মিনিট চোখের ওপর রেখে পরিষ্কার পানি দিয়ে ঝাপসা দিয়ে চোখের অংশটা ধুয়ে ফেলুন। এটি নিয়ম করে দিনে দুই বার ব্যবহার করুন।

 

পাঠক, চোখের নিচে কালো দাগ হওয়ার বিভিন্ন কারণ রয়েছে।উপরুক্ত ঘরোয়া উপায় গুলো ব্যবহার করেও যদি চোখের নিচের কালো দাগ না দূর হয় অবশ্যই আপনাকে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে চি