সেনসিটিভ ত্বকের যত্নে মুলতানি মাটি যেভাবে ব্যবহার করবেন

আমাদের মধ্যে এমন অনেকেই আছেন যাদের ত্বক অত্যন্ত সেনসিটিভ বা সপর্শকাতর।সেনসিটিভ ত্বকের রূপচর্চায় একটু বাড়তি যত্নের প্রয়োজন হয়। কেননা সেনসিটিভ ত্বক সামান্য তাপমাত্রা রোধে গেলেই ত্বকের লালচে ভাব চলে আসে বিভিন্ন ধরনের দাগ পড়ে যায়। সানবার্ন সেনসিটিভ ত্বকের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর একটি বিষয়। অনেকেই সেনসিটিভ ত্বকের জন্য বিভিন্ন ধরনের কেমিক্যালযুক্ত প্রসাধনী ব্যবহার করে  ত্বকের ক্ষতি সাধন করছেন।

সেনসিটিভ ত্বকের যত্নে একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ প্রাকৃতিক উপাদান হচ্ছে মুলতানি মাটি। তবে এই মুলতানি মাটি কিভাবে  সেনসিটিভ ত্বকের জন্য ব্যবহার করব সে সম্পর্কে অনেকেরই কোনো ধারণা নেই। তাই সুপ্রিয় বন্ধুরা সেনসিটিভ ত্বকের যত্নে এই আলোচনাটি সাজিয়েছি কিভাবে মুলতানি মাটির ফেসপ্যাক এবং মুলতানি মাটি আমাদের সেনসিটিভ ত্বকের ব্যবহার করা যায় তার বিস্তারিত আলোচনা নিয়ে । তাহলে চলুন বন্ধুরা দেখে নেয়া যাক সেনসিটিভ ত্বকের যত্নে মুলতানি মাটি কিভাবে ব্যবহার করবেন।

সেনসিটিভ ত্বক কি এবং এর বৈশিষ্ট্যঃ

যেহেতু অতন্ত সেনসিটিভ এবং স্পর্শকাতর’ তাকেই সাধারণত সেনসিটিভ ত্বক বলা হয়। আবহাওয়ার ধরনভেদে সেনসিটিভ ত্বক ধরণ পরিবর্তন করে। যেমন গ্রীষ্মকালে অতিরিক্ত তৈলাক্ত,  শীতকালে অতিরিক্ত শুষ্ক হয়ে যায়।

সেনসিটিভ ত্বকের বৈশিষ্ট্যঃ

  • অতিরিক্ত সংবেদনশীল।
  • শুষ্ক হয়ে গেলে অস্বস্তি বোধ হয়।
  • বিভিন্ন ধরনের ক্রিম লাগালে সাথে সাথে প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়।
  • কোথাও লাগলে বা অল্পতেই প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়।
  • সহজেই এলার্জি সমস্যা দেখা দেয়।

সেনসিটিভ ত্বকের যত্নে মুলতানি মাটি যেভাবে ব্যবহার করবেনঃ

সেনসিটিভ ত্বকের যত্নে মুলতানি মাটি অত্যন্ত কার্যকরী। তবে সরাসরি মুলতানি মাটি সেনসিটিভ হবে এপ্লাই না করে বিভিন্ন উপাদানের মিশ্রণে মুলতানি মাটির কিছু অত্যন্ত কার্যকরী ফেস প্যাক তৈরির মাধ্যমে ত্বকে ব্যবহার করা যায়। তা বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

মুলতানি মাটি এবং শসার রসঃ

  • শসা ভালোভাবে ব্লেন্ড করে নিয়ে আধাকাপ শসার রসের সাথে  2 থেকে 3 চা চামচ মুলতানি মাটি ভালোভাবে মিশিয়ে নিয়ে তৈরি করে নিন সেনসিটিভ ত্বকের জন্য অত্যন্ত কার্যকরী মুলতানি মাটির ফেসপ্যাক টি।
  • এবার পরিষ্কার পানি দিয়ে আপনার মুখ ধুয়ে নিন।
  • তারপর পরিষ্কার তোলা অথবা মুখের ব্রাশের সাহায্যে মুলতানি মাটির মিশ্রণটি ত্বকে ভালোভাবে স্ক্রাব করে লাগিয়ে নিন।

  • তিন থেকে পাঁচ মিনিট আলতোভাবে স্ক্রাব করুন।
  • 20 থেকে 25 মিনিট ভালোভাবে শুকানোর জন্য সময় দিয়ে তারপর ঠাণ্ডা জলে মুখ ধুয়ে নিন।
  • তারপর আপনার ত্বক শুষ্ক হলে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন।

উপকারিতাঃ

  • শসার রস আপনার ত্বকের অতিরিক্ত সেনসিটিভ ভাব দূর করে।
  • মুলতানি মাটির অ্যান্টি এজিং উপাদান আপনার ত্বকের ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়া দূর করে।
  • ত্বক কে চুলকানির মুক্ত রাখে।
  • সেনসিটিভ ত্বকের গভীরে গিয়ে ত্বকের কোষ কে সজীব এবং মসৃণ রাখে।

  মুলতানি মাটি, দই এবং কাঁচা হলুদঃ

  • প্রথমে একটি পরিষ্কার পাত্রে 2 চামচ মুলতানি মাটি, 2 চা-চামচ দই এবং আধা চা-চামচ কাঁচা হলুদের গুঁড়া মিশিয়ে তৈরি করে নিন মুলতানি মাটির ফেস প্যাক টি।
  • পরিষ্কার মুখে তোলা অথবা হাতের সাহায্যে মিশ্রণটি  সম্পূর্ণ মুখে ভালোভাবে স্ক্রাব করে লাগিয়ে নিন।
  • থেকে 5 মিনিটস ক্রাফট করার পর, সম্পূর্ণভাবে শুকিয়ে যাওয়ার জন্য 20 থেকে 25 মিনিট অপেক্ষা করুন।
  • মিশ্রণটি সম্পূর্ণ শুকিয়ে গেলে আপনার ত্বক কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে নিন।

 সেনসিটিভ ত্বকের যত্নে প্যাকটির উপকারিতাঃ

  • ত্বকের স্বাভাবিক আর্দ্রতা বজায় রাখে ত্বকের অতিরিক্ত শুষ্ক  এবং অতিরিক্ত তৈলাক্ত হতে দেয় না।
  • ত্বকে গভীর থেকে উজ্জ্বল এবং ফর্সা করে তুলে।
  • ব্রণ এবং ব্রণের দাগ দূর করে।
  • সানবার্ন এবং বলিরেখা দূর করে ত্বক কে দাগহীন সুস্থ, সুন্দর ও উজ্জ্বল করে তোলে।

মুলতানি মাটি, রোজ অয়েল/অলিভ অয়েলঃ

  • 2 চা চামচ মুলতানি মাটি, আধা চা-চামচ কাঁচা হলুদের গুঁড়া এবং 1 চা চামচ রোজ অয়েল বা অলিভ অয়েল একটি পরিষ্কার পাত্রে নিয়ে ভালোভাবে গুলিয়ে তৈরি করে নিন মুলতানি মাটির অত্যন্ত কার্যকরী ফেসপ্যাকটি।
  • পরিষ্কার মুখে মুলতানি মাটির ফেসপ্যাক ভালোভাবে তুলা অথবা মুখের ব্রাশের সাহায্যে লাগিয়ে নিন।
  • তিন থেকে পাঁচ মিনিট আলতোভাবে স্ক্রাব করে নিন।
  • শুকানোর জন্য 15 থেকে 20 মিনিট সময় দিন।
  • তারপর  ঠান্ডা জলে মুখ ধুয়ে নিন।

  উপকারিতাঃ

  • সেনসিটিভ ত্বকের অতিরিক্ত শুষ্কতা দূর করে ত্বকের স্বাভাবিক আর্দ্রতা ধরে রাখবে।
  • ত্বকের অতিরিক্ত সংবেদনশীলতা দূর করবে।
  • ত্বকের লোমকূপের শক্তি যোগাবে।
  • ত্বক কে দূষণমুক্ত এবং পরিষ্কার রাখবে।
  • ত্বক কে গভীর থেকে  স্থায়ীভাবে উজ্জ্বল ফর্সা এবং আকর্ষণীয় করে তুলবে।

মুলতানি মাটি, অ্যালোভেরার জেল এবং গোলাপজলঃ

  • সেনসিটিভ ত্বকের জন্য এই  মুলতানি মাটির ফেসপ্যাক অত্যন্ত কার্যকরী।
  • 2 চা চামচ মুলতানি মাটি 2 চামচ অ্যালোভেরা জেল এবং পরিমাণ মতো গোলাপজল একটি পরিষ্কার পাত্রে নিয়ে ভালোভাবে  মিশিয়ে তৈরি করে নিন মুলতানি মাটির ফেসপ্যাক টি।
  • ত্বকে ব্যবহারের জন্য উপরে উল্লেখিত ব্যবহার পদ্ধতি সমূহ অনুসরণ করুন।

  উপকারিতাঃ

  • সেনসিটিভ ত্বকের অতিরিক্ত সেনসিটিভ ভাব দূর করবে।
  • ত্বকের স্বাভাবিক আর্দ্রতা ধরে রাখতে সাহায্য করবে।
  • ত্বক কে গভীর থেকে উজ্বল কোমল এবং ফর্সা করে তুলবে।
  • ত্বকের মৃত কোষ সমূহ দূর করে নতুন কোষ জন্মাতে সাহায্য করবে।
  • ত্বক থেকে বিভিন্ন ধরনের ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়া দূর করে ত্বককে সুস্থ রাখবে।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ

মুলতানি মাটি এবং মুলতানি মাটির ফেসপ্যাক এ ব্যবহৃত বিভিন্ন উপকরণ আপনার ত্বকের জন্য এলার্জিক হলে তা ব্যবহার থেকে সম্পূর্ণ বিরত থাকুন।

মুলতানি মাটির ফেসপ্যাক সেনসিটিভ ত্বকে লাগিয়ে রোদে, গরম স্থানে এবং ধুলাবালি যুক্ত স্থানে যাবেন না।

মুলতানি মাটির ফেসপ্যাক সেনসিটিভ ত্বকে স্ক্রাব করার সময় অতিরিক্ত প্রেসার দিবেন না।

ভালো ফলাফল পেতে সপ্তাহে কমপক্ষে দু’বার সেনসিটিভ থাকে মুলতানি মাটির ফেসপ্যাক ব্যবহার করুন।

আপনার তো অতিরিক্ত সংবেদনশীল এবং সেনসিটিভ হওয়ায় একটু বাড়তি যত্নের প্রয়োজন হয়। তাই বাড়তি যত্ন হিসেবে সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়ে মুলতানি মাটির ফেসপ্যাক ব্যবহার করে নিজের ত্বককে উজ্জ্বল ফর্সা এবং মসৃণ করে তুলতে। আমাদের নির্দেশিত পথ অনুসরণ করে আপনার সেনসিটিভ ত্বকের মুলতানি মাটির ফেসপ্যাক সমূহ ব্যবহার করুন। হয়ে উঠুন কোমল, মসৃণ, সুস্থ এবং আকর্ষণীয় ত্বকের অধিকারী।

 ধন্যবাদ