গরমকালে রোদে পোড়া দাগ দূর করে ন্যাচারালি ত্বক উজ্জল ও ফর্সা করতে অত্যন্ত স্পেশাল কিছু ফেসপ্যাক।

গরমকালের অতিরিক্ত গরম এবং সূর্যের কড়া রোদ আমাদের ত্বকের  জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে। সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি সরাসরি আমাদের ত্বকে পড়ে তাই আমাদের ত্বকে সানবার্ন দেখা দেয়, ত্বকে কালচে ভাব চলে আসে। ত্বক হয়ে যায় রুক্ষ, মলিন এবং বিবর্ণ।

তাই গরমকালে ত্বকের অতিরিক্ত যত্নের প্রয়োজন হয়। তাই যারা রোদে পোড়া দাগ দূর করে ত্বককে উজ্জ্বল ও ফর্সা করতে চান তাদের জন্য কিছু স্পেশাল ফেসপ্যাক নিয়ে আমাদের এই আলোচনাটি সাজিয়েছে। সম্পূর্ণ ন্যাচারাল এই ফেসপ্যাক গুলো আপনি বাড়িতে বসেই তৈরি করতে পারবেন। নিয়মিত ফেসপ্যাক গুলো ব্যবহারে আপনার ত্বক হয়ে উঠবে রোদে পোড়া দাগ মুক্ত, উজ্জ্বল, ফর্সা এবং আকর্ষণীয়। তাহলে চলুন বন্ধুরা দেখে নেয়া যাক গরমকালে ত্বকের রোদে পোড়া দাগ দূর করে ত্বক কে উজ্জ্বল এবং ফর্সা করার অত্যন্ত স্পেশাল কিছু ফেসপ্যাক।

গরমকালে রোদে পোড়া দাগ দূর করে ন্যাচারালি ত্বক  উজ্জল ও ফর্সা করতে অত্যন্ত স্পেশাল  ফেসপ্যাক সমূহঃ

 

 অ্যালোভেরা এবং মধুর ফেসপ্যাকঃ

3 চা চামচ অ্যালোভেরার জেল,

1 চা চামচ মধু।

আধা চা চামচ লেবুর রস।

ভালোভাবে মিশিয়ে নিয়ে তৈরি করে নিন এলোভেরার এই ফেসপ্যাকটি।

  উপকারিতাঃ

গরমকালেও এটি আপনার ত্বকের কালো দাগ দূর করবে।

ত্বকের স্বাভাবিক আর্দ্রতা ধরে রাখবে।

ত্বক থেকে ক্ষতিকারক জীবাণু সমূহ সম্পূর্ণরূপে দূর করবে।

ত্বক কে গভীর থেকে উজ্জ্বল এবং ফর্সা করে তুলবে।

 

 মুলতানি মাটির ফেসপ্যাকঃ

উপকরণ সমূহঃ

2 চা চামচ মুলতানি মাটি।

1 চা চামচ মধু।

1 চা-চামচ অ্যালোভেরার জেল।

পরিমান মত কাঁচা ও তরল দুধ।

উপকরণ সমূহের একটি পরিষ্কার পাত্রে ভালোভাবে মিশিয়ে একটি ঘন মিশ্রণ তৈরী করে নিন। তাহলেই গরমকালে ব্যবহারের জন্য মুলতানি মাটির ফেসপ্যাক ব্যবহারের জন্য তৈরি হয়ে যাবে।

 উপকারিতাঃ

রোদে পোড়া দাগ সম্পূর্ণ দূর করবে।

বলিরেখা দূর করবে।

ত্বক কে সতেজ এবং কোমল রাখবে।

ত্বক কে গভীর থেকে উজ্জ্বল ফর্সা করে তুলবে।

 

 বিটরুটের ফেসপ্যাকঃ

উপকরণ সমূহঃ

3 চা চামচ বিটরুটের রস।

2 চা চামচ গোলাপ জল।

2 চা চামচ চালের গুঁড়া।

1 চা চামচ অপরিশোধিত মধু।

উপকরণসমূহ একটি পরিষ্কার পাত্রে নিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে একটি ঘন মিশ্রণ তৈরী করে নিন। গরমকালে ব্যবহারের জন্য বিটরুটের এই ফপসপ্যাক টি আপনার ত্বকের জন্য অত্যন্ত উপকারী।

উপকারিতাঃ

ত্বক কে অতিমাত্রায় উজ্জ্বল এবং ফর্সা করে তুলবে।

গরমকালে ত্বকের স্বাভাবিক লাবণ্যতা ধরে রাখবে।

ব্রণ এবং ব্রণের দাগ সম্পূর্ণরূপে দূর করবে।

বলিরেখা দূর করবে।

ত্বকের বুড়িয়ে যাওয়া ভাব দূর করে যৌবন ধরে রাখবে।

শসার ফেসপ্যাকঃ

উপকরণ সমূহঃ

৩ টেবিল চামচ শসার রস।

একটি অর্ধেক পাকা টমেটোর পেস্ট।

2 চা চামচ বেসন।

পরিমাণমতো গোলাপজল।

উপকরণসমূহ একটি পরিষ্কার পাত্রে নিয়ে ভালোভাবে পেস্ট করে নিন। তাহলেই তৈরি হয়ে যাবে প্রাকৃতিক উপায়ে শসার ফেসপ্যাক।

উপকারিতাঃ

তীব্র গরম কালেও ত্বক কে সতেজ এবং ঠাণ্ডা রাখবে।

ব্ল্যাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস দূর করবে।

সানবার্ন দূর করবে।

ব্রণের উপদ্রব কমাবে।

ত্বক কে স্থায়ীভাবে উজ্জ্বল ও ফর্সা করে তুলবে।

 

চন্দন পাউডার এর ফেসপ্যাকঃ

উপকরন সমুহঃ

2 টেবিল চামচ চন্দন পাউডার।

1 চা চামচ মধু।

আধা চা-চামচ কাঁচা হলুদের গুড়া।

পরিমান মত কাঁচা তরল দুধ।

উপকরণসমূহ পরিষ্কার পাত্রে নিয়ে ভালোভাবে পেস্ট তৈরি করে ঘন মিশ্রণ তৈরি হয় মত কাঁচা তরল দুধ মিশিয়ে নিন। তাহলেই তৈরি হয়ে যাবে  গরমকালের জন্য অত্যন্ত কার্যকরী চন্দন পাউডার এর স্প্যাসাল ফেসপ্যাক।

উপকারিতাঃ

ত্বককে কোমল মসৃণ ও আকর্ষণীয় করবে।

রোদে পোড়া দাগ দূর করবে।

বলিরেখা ও ব্রনের দাগ দূর করবে।

ত্বককে টানটান রাখবে।

স্থায়ীভাবে ত্বক কে অতিমাত্রায় উজ্জ্বল ও ফর্সা করে তুলবে।

 

অ্যাভোকাডোর ফেসপ্যাকঃ

উপকরণসমূহঃ

একটি পাকা অ্যাভোকাডো ফলের পেস্ট।

1 চা চামচ এলোভেরা জেল।

এক চা চামচ মধু।

2 চা চামচ টক দই।

2 চা চামচ মুলতানি মাটি।

সবগুলো উপকরণ ভালোভাবে মিশিয়ে নিয়ে তাতে পরিমাণমতো গোলাপজল দিয়ে ঘন মিশ্রণে তৈরি করে নিন এভোকাডোর স্পেশাল ফেসপ্যাকটি।

উপকারিতাঃ

ত্বকের গ্লে অনেকাংশে বাড়িয়ে তুলবে।

ত্বক কে কাঁচের মত চকচকে করে তুলবো।

ব্রণ  এবং ব্রণের দাগ দূর করবে।

ত্বক কে অতিমাত্রায় উজ্জ্বল ও ফর্সা করে তুলবে।

ত্বকের মৃত কোষ সমূহ দূর করবে।

 

গরম কালে স্পেশাল ফেসপ্যাক সমূহ ত্বকে ব্যবহারের পদ্ধতিঃ

প্রথমে আপনার ত্বক ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিন।

এরপর তোলা অথবা মুখের ব্রাশের সাহায্যে ফেসপ্যাক এর মিশ্রন গুলো নিয়ে ভালোভাবে স্ক্রাব করে সম্পূর্ণ মুখে লাগিয়ে নিন।

5 থেকে 7 মিনিট আলতোভাবে ত্বকের ওপর মাসাজ করুন।

স্পেশাল ফেসপ্যাক এর মিশ্রণ শুকিয়ে যাওয়ার জন্য 25 থেকে 30 মিনিট সময় দিন।

সম্পূর্ণভাবে শুকিয়ে গেলে কুসুম গরম জলে তুলা ভিজিয়ে আস্তে আস্তে ঘষে ঘষে মিশ্রন গুলো তুলে ফেলুন।

এরপর ঠাণ্ডা পরিষ্কার জলে মুখ ধুয়ে নিন।

এরপর আপনার ত্বকের উপযোগী ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন।

 

বিঃদ্রঃ

উপরে বর্ণিত কোন উপাদান আপনার ত্বকের জন্য এলার্জিক হলে সেটি ব্যবহার করা থেকে সম্পূর্ণ বিরত থাকুন।

ফেসপ্যাক সমূহ মুখে লাগিয়ে রোদে, গরম স্থানে এবং ধুলাবালি যুক্ত স্থানে যাবেন না।

আপনার ত্বকের জন্য উপযুক্ত ফেসপ্যাকটি নির্বাচন করবেন।

উপরে ব্যবহৃত সমস্ত উপকরণ ভেষজ ফলের দোকান, মসলার দোকান এবং প্রসাধনীর দোকানে গেলে পাওয়া যাবে।

স্থায়ীভাবে অতিমাত্রায় উজ্জল ও ফর্সা হতে সপ্তাহে অন্তত দুই থেকে তিনবার স্পেশাল ফেসপ্যাক সমূহ ব্যবহার করবেন।

 

গরম কালে রোদে পোড়া দাগ দূর করতে, অতিরিক্ত গরমে ত্বকের চুলকানি দূর করতে। ত্বক কে গভীর থেকে উজ্জ্বল ফর্সা সুস্থ এবং সতেজ রাখতে উপরে উল্লেখিত স্পেশাল  ফেসপ্যাক সমূহ অত্যন্ত কার্যকরী। তাই আমাদের নির্দেশিত পন্থা অনুসরণ করে সম্পূর্ণ ন্যাচারাল এই ফেস্প্যাক গুলো বাড়িতে তৈরি করে ত্বকে ব্যবহার করুন।

 ধন্যবাদ